বিজ্ঞাপন
নিজস্ব প্রতিবেদক
আজ : ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, রবিবার প্রকাশ করা : সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১

  • কোন মন্তব্য নেই

    চকরিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোর পূর্বক অন্যের পৈত্রিক সম্পত্তি দখলে নিল দখলবাজরা

    চকরিয়া(কক্সবাজার)প্রতিনিধিঃ

    কক্সবাজারের চকরিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এক অসহায় পরিবারের পৈতৃক সূত্রে পাওয়া বসতভিটা পুরুষদের অনুপস্থিতির সুযোগে জোর করে বাড়ী তৈরির অভিযোগ উঠেছে একদল দখলবাজদের বিরুদ্ধে।

    ঘটনাটি ঘটেছে চকরিয়া পৌরসভা ৬ নং ওয়ার্ড কাহারিয়াঘোনায়।

    এই বিষয়ে আজিজুল হকের স্ত্রী ইছমত আরা বাদী হয়ে স্থানীয় খোরশেদ আলম,মোঃ আইয়ুব,মোস্তফা কামাল, শাহেনা বেগমের নাম উল্লেখপূর্বক চকরিয়া থানায় একটি লিখিত নালিশি অভিযোগ দায়ের করেন।

    অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, বাদীনির দেবর জাহাঙ্গীর আলম পৈত্রিক সূত্রে ভরামুহুরী মৌজার বিএস খতিয়ান ২৭২,৪৩০ দাগের অন্দর ৩.৫ শতক জমি যা হেবানামা সূত্রে জাহাঙ্গীরের নামে নামজারি ও জমাভাগ খতিয়ান ১৬৬৯ সৃজিত হয়। বিবাদীগণ মামলাবাজ ও খারাপ প্রকৃতির লোক হওয়ায় প্রায় সময় বাদীর দেবরের পৈত্রিক সম্পত্তি দখলে নিতে অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সম্পত্তি নিয়ে সৃষ্ট সমস্যা সুষ্ঠু সামাধানের জন্য অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত, কক্সবাজারে ৬৬৮/১৮ মামলা চলমান রয়েছে। তা সত্ত্বেও বিবাদীগণ আদালতের নিষেধাজ্ঞা (১৪৪ধারা) অমান্য করে জোর করে সম্পত্তি দখলে নিতে ১৮ সেপ্টেম্বর বাড়ীর পুরুষদের অনুপস্থিতিতে জোরপূর্বক জুপড়ী ঘর নির্মাণ করে দখলে নেয়।

    খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে বাড়ী নির্মাণ কাজ বন্ধ করলেও পুলিশ ঘটনাস্থল ত্যাগের পর পর বিবাদীগণ আবার বাড়ী নির্মাণ শুরু করে বসতী স্থাপন করেছে বলে বাদীনি অভিযোগে উল্লেখ করেন।

    উল্লেখ্য, বাদীনির স্বামী ও দেবরকে বিবাদীগণ অন্য একটি মিথ্যা মামলায় পুলিশকে ভূল বুঝিয়ে গ্রেফতার করিয়ে এই সম্পত্তি দখল করে।বর্তমানে বাদীনির স্বামী ও দেবর জেলখানায় থাকায় বাদীনি চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন।

    এই বিষয়ে ভুক্তভোগী ইছমত আরা তাহার স্বামী ও দেবরকে মিথ্যা মামলা থেকে মুক্তি এবং জোরপূর্বক সম্পত্তি দখলকারীদের আইনের আওতায় আনতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

    এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) সাকের মোঃ যুবায়ের বলেন, কাহারিয়াঘোনায় সম্পত্তি দখল বিষয়ে ইছমত আরার অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে সাথে সাথে পুলিশ পাঠিয়ে বাড়ী তৈরির কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত পূর্বক আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *